বসার ঘরের সাজগোজ ও সৌন্দর্য

আপনার বাড়ির অন্যান্য ঘরের তুলনায় বসার ঘরটা হওয়া উচিৎ অন্যরকমের। বাহির থেকে কোন অতিথি এলেই আপনাকে নিয়ে যেতে হবে বসার ঘরে। এমন কি আপনি নিজেও হয়ত বাহির থেকে এসে কিছু সময় পার করেন এই ঘরে। তাই এই ঘরের সাঁজের প্রতি আপনাকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে। নিজের রুচি অনুযায়ী দেয়ালের কালার, পর্দা, আসবাবপত্র ও শোপিছ দিয়ে সাজিয়ে তুলুন ঘরটি।

বসার ঘরের সৌন্দর্য অনেকটাই নির্ভর করে আসবাবপত্রের উপর। বাহারি নকশা ও ব্যাবহারে আরামদায়ক এমন আসবাবপত্র ব্যাবহার করা উচিৎ এই ঘরে। আপনি বসার জন্য ব্যাবহার করতে পারেন নিচু ধরনের সোফা। এখন এসব সোফার বেশ কদর লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আর এর সাথে রাখুন বিভিন্ন নকশা করা কুশন। আবার অনেকেই বসার জন্য ম্যাটসও ব্যাবহার করেন। সোফার পাশে রাখতে পারেন টি টেবিল অথবা কফি টেবিল। ঘরের কোণাগুলো সাঁজাতে কর্নার কেবিনেটের কোন বিকল্প নেই। ঘরের দেয়ালে সাজিয়ে রাখতে পারেন কোন বিশেষ মুহূর্তের বাঁধানো ছবি। টেলিভিশন, সিডির ডিস্ক, বিভিন্ন ধরনের বই ও রকমারি শোপিছ সাঁজাতে ওয়াল ইউনিক, মিডিয়াস্টোরেজ অথবা মিডিয়াকেবিনেট বেশি আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে।

ঘরের রঙের বিষয়েও একেকজন একেক রকম ভাবে সাজিয়ে থাকে। তবে ছোট ঘরের ক্ষেত্রে হালকা এবং বড় হলে গাড় রঙ বেশি মানানসই। কেউ কেউ আবার একাধিক কালারও ব্যাবহার করে থাকে। কার্পেট ও পর্দা ঘরের রঙের সাথে মিলিয়ে অথবা সম্পূর্ণ বিপরীত রঙের হলেই ভালো দেখা যাবে। ডিফিউজ লাইটিং এখন বেশ চলছে। বিভিন্ন রকমের ল্যাম্পশেড ও ঝাড়বাতির মাধ্যমে আলোকসজ্জা করতে পারেন। তবে এই আলোকসজ্জা যাতে একটু নরম ধাঁচের হয় তাহলে ঘরটি বেশ প্রশান্তির হয়ে উঠবে।

বি:দ্র: আমাদের প্রতিটি লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুকপেজ-এ লাইক দিন এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। আপনার মনে কোন প্রশ্ন থাকলে এবং যেকোন বিষয়ে জানতে চাইলে অথবা আপনার কোন লেখা প্রকাশ করতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজ বিডি লাইফ এ যেয়ে ম্যাসেজ করতে পারেন।

ফেসবুকের হোমপেজে নিয়মিত আপডেট পেতে নিচের লাইক বাটনে ক্লিক করুন

⇒ লেখাটি ভালো লাগলে প্লিজ বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। শেয়ার করতে √ এখানে ক্লিক করুন

আপনার ফেসবুক একাউন্ট থেকে খুব সহজেই কমেন্ট করুন

মন্তব্য করুনঃ

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন

14 − 12 =