পাকা আম

বাজারে অসাধু ব্যবসায়ীরা রাসায়নিক দিয়ে আম পাকিয়ে থাকেন। এসব আম খেয়ে সাময়িক তৃপ্তি পেলেও দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতির মুখে পড়তে হয় আমাদেরকে। তাই দেখে শুনে ফরমালিনমুক্ত ভালো আম কেনা উচিত। কিন্তু সেই ভালোটা আপনি চিনবেন কী করে। এ প্রশ্নের উত্তরে আছে কিছু সমাধান। ভালো আম চেনার কিছু উপায়। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলি।

আম কিনতে গেলে একটি বিষয় অবশ্যই খেয়াল করবেন তা হল- আমের ওপর মাছি বসে কিনা। আমে রাসায়নিক থাকলে তাতে মাছি বসবে না। এছাড়া গাছপাকা আম হলে দেখবেন, আমের গায়ে সাদাটে ভাব থাকে। কিন্তু ফরমালিন বা অন্য রাসায়নিকে চুবানো আম হয় ঝকঝকে সুন্দর ও পরিষ্কার। গাছপাকা আমের ত্বকে দাগ থাকে। রাসায়নিকে পাকানো আমের গা হয় দাগহীন। কারণ কাঁচা অবস্থাতেই পেড়ে ওষুধ দিয়ে পাকানো হয়। আম মুখে দেওয়ার পর যদি দেখেন, কোনো সুঘ্রাণ নেই কিংবা আমে টক-মিষ্টি কোনো স্বাদই নেই- বুঝবেন যে আমে ওষুধ দেওয়া হয়েছিল।আম কেনা হলে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এমন কোথাও রাখুন যেখানে বাতাস চলাচল করে না। গাছপাকা আম হলে গন্ধে মৌ মৌ করবে চারপাশ।

ওষুধ দেয়া আমে এই মিষ্টি গন্ধ হবেই না। গাছপাকা আমের গায়ের রঙ আলাদা। গোড়ার দিকে একটু গাঢ় রঙ। রাসায়নিক দেওয়া আমের আগাগোড়া হলদে রঙ হয়ে যায়।হিমসাগরসহ আরও বেশ কিছু জাতের আম পাকলেও সবুজ থাকে। গাছপাকা হলে এসব আমের ত্বকে বিচ্ছিরি দাগ পড়ে। রাসায়নিক দিয়ে পাকানো হলে আমের ত্বক হয় মসৃণ ও সুন্দর।

বি:দ্র: প্রতিটি লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুকপেজ-এ লাইক দিন এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। যেকোন বিষয়ে জানতে চাইলে এবং আপনার কোন লেখা প্রকাশ করতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজ বিডি লাইফ এ যেয়ে ম্যাসেজ করতে পারেন।

খবরগুলো আপনার ফেসবুক হোমপেজে নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন