মন-মেজাজ ভালো করা

পৃথিবীর নিজের অক্ষের ওপর একবার ঘুরতে সময় লাগে ২৪ ঘণ্টা, আমাদের শরীর নিয়ন্ত্রিত হয় এই ২৪ ঘণ্টার চক্রে।

বিবিসির প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা যায়, আমাদের শরীর সূর্যালোক থেকে পুরোপুরি বঞ্চিত থাকলেও শরীরের এই ২৪ ঘণ্টার চক্র অপরিবর্তিত থাকবে।

তারপরও আমাদের শরীর সূর্যালোকের সংস্পর্শে আসলে দারুণভাবে সাড়া দেয়। এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এক সংকেত যা আমাদের দেহের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ শুরু করতে সাহায্য করে।

ঘুমানো এবং ঘুম থেকে ওঠার জন্য আলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যখন অন্ধকার ঘনিয়ে আসে তখন আমাদের শরীর থেকে মেলাটোনিন নিঃসৃত হয়। এটি আমাদের ঘুমাতে সাহায্য করে।

এছাড়া যাদের রাতে ঘুমাতে বেগ পেতে হয়, তাদের জন্য সকালের একঘণ্টার সূর্যালোক ম্যাজিকের মতো কাজ করতে পারে।

একই সাথে আলো আমাদের মস্তিষ্কে এমন কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসে যা আমাদের মন-মেজাজ ভালো রাখে। আমাদের অপটিক নার্ভ দিয়ে আলোর সংকেত যখন মস্তিষ্কে পৌঁছালে সেরোটোনিন নামের একটি রাসায়নিক নিঃসৃত হয়। সেরোটোনিন আমাদের মন-মেজাজ ফুরফুরে রাখে।

বি:দ্র: প্রতিটি লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুকপেজ-এ লাইক দিন এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। যেকোন বিষয়ে জানতে চাইলে এবং আপনার কোন লেখা প্রকাশ করতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজ বিডি লাইফ এ যেয়ে ম্যাসেজ করতে পারেন।

খবরগুলো আপনার ফেসবুক হোমপেজে নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন