হালাল পশু

প্রত্যেক সামর্থবান মুসলমানদেরই উপর কোরবানী করা ফরজ। কিন্তু এই ফরজ পালন করতে যেয়ে অনেকেই হয়তো ভুল করে থাকি। ইসলামে সাধারণত গৃহপালিত পশুর (ছাগল, গরু, মহিষ) ইত্যাদি গোসত খাওয়া মুসলমানদের জন্য হালাল করা হয়েছে। কিন্তু এই হালাল পশুর বেলাতেও কিছু বাধ্যবাধকতা রয়েছে। মানুষের স্বাস্থ্যেরযা তে না কোন ক্ষতি হয় সেই দিক বিবেচনা করে আল্লাহ তায়ালা হালাল পশুর ৭টি অঙ্গ খাওয়া মুসলমানদের জন্য হারাম করেছে। যেমন-
গরুর নাড়ি তথা রগ খাওয়া জায়েজ নয়। তবে ভুরি খাওয়া জায়েজ আছে। তবে ময়লা থেকে পরিস্কার করে নেয়া আবশ্যক। আবার, মুরগীর নাড়ি থাকে, কিন্তু ভুরি বলতে কিছু থাকে কি না? আমাদের জানা নেই।

হালাল পশুর যে ৭টি অঙ্গ হারাম সেগুলো হলো-

১- প্রবাহিত রক্ত।
২-নর প্রাণীর পুং লিঙ্গ।
৩- অন্ডকোষ।
৪- মাদী প্রাণীর স্ত্রী লিঙ্গ।
৫- মাংসগ্রন্থি।
৬- মুত্রথলি।
৭-পিত্ত।

এছাড়া বাকি সবই খাওয়া জায়েজ।

বি:দ্র: আমাদের প্রতিটি লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুকপেজ-এ লাইক দিন এবং বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। আপনার মনে কোন প্রশ্ন থাকলে এবং যেকোন বিষয়ে জানতে চাইলে অথবা আপনার কোন লেখা প্রকাশ করতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজ বিডি লাইফ এ যেয়ে ম্যাসেজ করতে পারেন।

ফেসবুকের হোমপেজে নিয়মিত আপডেট পেতে নিচের লাইক বাটনে ক্লিক করুন

⇒ লেখাটি ভালো লাগলে প্লিজ বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। শেয়ার করতে √ এখানে ক্লিক করুন

আপনার ফেসবুক একাউন্ট থেকে খুব সহজেই কমেন্ট করুন

মন্তব্য করুনঃ

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন

13 + three =